আগুন! আপনার সন্তানকে নিরাপদ রাখুন, জেনে নিন কিছু টিপস

আগুন

বাবা-মা হিসেবে সন্তানের নিরাপত্তা নিয়ে আপনার মতো আমরাও অনেক চিন্তিত থাকি। আমাদের প্রতিদিনের জীবনে এত সাবধানতার মাঝেও ঘটে যায় দুর্ঘটনা। আর শিশুদের পরিপক্কতার লেভেল কিছুটা কম থাকায় তাদের দ্বারা ঘটে যেতে পারে অনেক দুর্ঘটনা। আগুন সেগুলোর মধ্যে অন্যতম। শিশুরা ঘর জুড়ে ঘুরে বেড়ায় কিন্তু হয়তো জানে না তাদের অল্প ভুলে ঘটতে পারো যেকোন ধরণের দুর্ঘটনা। সেসব দুর্ঘটনা এড়াতে সাবধান থাকতে হবে আমাদের। বাড়াতে হবে সতর্কতা। সন্তানকে আগুন থেকে রক্ষা করার জন্য আজকে আমরা জেনে নিবো কিছু টিপস।

ঘুমানোর আগে আগুন এর উৎস বন্ধ করুন

রান্না ঘর, সার্কিট ব্রেকারের রুম, গ্যাসের সিলিন্ডারের রুম ইত্যাদি যেসব জায়গা থেকে আগুনের সূত্রপাত হয় সেসব রুমের দরজা ঘুমানোর আগে ভালোভাবে বন্ধ করুন। এতে ওইসব রুমে যদি কোন কারণে আগুন লেগে যায় তাহলে আগুন ছড়িয়ে পড়ার আগে কিছুক্ষণ ভাবার, সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য একটু সময় পাবেন।

ঘরে সিগারেট খাওয়া বন্ধ করুন

গবেষণায় বলছে বাসা বাড়িতে আগুনের সূত্রপাতে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই জ্বলন্ত সিগারেটের ফিল্টার দায়ী। সুতরাং এই সমস্যা থেকে মুক্ত থাকার জন্য বাসায় সিগারেট খাওয়া ছেড়ে দিতে হবে। যদি তা না পারেন, তাহলে দয়া করে বিছানায় বসে বা দাহ্য কোন পদার্থের আশেপাশে খাওয়া যাবে না। সিগারেট না খাওয়াই উত্তম। সিগারেট কিন্তু আপনার সন্তানের স্বাস্থ্যেরও ক্ষতি করে।

দাহ্য পদার্থ শিশুর নাগালের বাইরে রাখুন

ম্যাচ বক্স, লাইটার, মোমবাতি ইত্যাদি আগুনের উৎস শিশুর নাগালের বাইরে রাখুন। এইসব জিনিস শিশুদের আশাপাশে থাকলে তারা তা দিয়ে খেলতে পছন্দ করে। খেলতে খেলতেই ঘটে যেতে পারে কোন দুর্ঘটনা। বিশেষ করে রুমে মোমবাতি জ্বালানো অবস্থায় শিশুকে রুমে একা থাকতে দিবেন না।

রান্নাঘরে সন্তানকে একা যেতে দিবেন না

রান্নাঘরতো ঘরেরই একটা অংশ। সবসময়তো আর দরজা বন্ধ রাখাও সম্ভব না। আবার মাঝে মাঝে সন্তান রান্না ঘরে টুকটাক এক্সপেরিমেন্ট করে, কিংবা মজা করে কিছু রান্না করে। তখন তার পাশে থাকুন ও তাকে পর্যবেক্ষণ বা সাহায্য করুন। কোনভাবেই সন্তানকে রান্নাঘরে একা যেতে দিবেন না।

জরুরি নির্গমন পথ সম্পর্কে ধারণা দিয়ে রাখুন

ঘরে আগুন লাগলে জরুরি বের হওয়ার জন্য সবসময় প্রস্তুত থাকতে হবে। সন্তান একটু বড় হলে তাকে নির্গমন পথ সম্পর্কে আগে থেকে ধারণা দিয়ে রাখুন। প্রয়োজনে ছোট খাটো ট্রেনিং সেশনের ব্যবস্থা করুন। যেন হুট করে কোন দুর্ঘটনায় সন্তান আতঙ্কিত না হয়ে আপনার সাহায্য ছাড়াও বের হতে পারে। আর সবসময় বের হওয়ার পথ পরিষ্কার ও খোলামেলা রাখার চেষ্টা করবেন।

ঘরের চাবি কাছাকাছি রাখুন

ঘরের যে কোন ধরণের চাবি একদম সহজে নিতে পারেন এমন জায়গায় রাখুন। সন্তানকেও সেই জায়গা সম্পর্কে ধারণা দিয়ে দিন। চাবি নাগালের বাইরে বা দূরে কোথাও রাখলে আকস্মিক দুর্ঘটনার ক্ষেত্রে আপনি কিছুটা আতঙ্কিত হয়ে ভুলেও যেতে পারেন।

বৈদ্যতিক সুইচ ও যন্ত্রপাতির সেফটি নিশ্চিত করুন

ঘরে আগুন লাগার আরো একটি অন্যতম কারণ হল বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট। বৈদ্যতিক সুইস ও যন্ত্রপাতি সন্তানের নাগালের বাইরে রাখুন। হোল্ডার বা সকেটে কভারও ব্যবহার করতে পারেন চাইলে। শিশুদের বৈদ্যুতিক সেফটি নিয়ে পড়ে নিতে পারেন আমাদের এই ব্লগটিও

বিজ্ঞানবাক্সের মাধ্যমে শিশুরা খেলতে খেলতে শিখবে, বিজ্ঞান ভালোবাসবে। বিজ্ঞানবাক্স কিনতে এখানে ক্লিক করুন।

নিয়মিত এমন কন্টেন্ট পেতে সাবস্ক্রাইব করুন

* indicates required




57 total views, 1 views today

What People Are Saying

Facebook Comment