Show Categories

বাচ্চাদের খেলনা কীভাবে তাদের সৃজনশীল ও উদ্ভাবনী করে তোলে!

বাচ্চাদের খেলনা

খেলনা শুধু খেলনা নয়! খেলনা থেকেই শিশু শিখতে পারে অনেক কিছু। আপনি যদি আপনার সন্তানকে সঠিক খেলনাটি দিতে পারেন তাহলে সে খেলনা থেকেই শিখতে পারবে অনেক কিছু। বাচ্চাদের খেলনা তাদের বিকাশে একটা বিশেষ ভূমিকা রাখে। চলুন বিস্তারিত জানা যাক!

শিশুরা পড়ে শেখার চেয়ে খেলে বেশি শেখে

প্রায় বেশিরভাগ শিশুকে যখন বইয়ের পড়া দেয়া হয় সে প্রথম প্রথম কয়েকদিন পড়ে। কিন্তু খেয়াল করলেই দেখবেন, খুব দ্রুতই তার এই আগ্রহটা কমে যায়। সে আর বইয়ের আশেপাশেই যেতে চায় না! এরকম কেন হয়? এমন হওয়ার একটা বিশেষ কারণ হলো নতুনত্ব না পাওয়া। সবসময় শুধু বর্ণ মুখস্থ করতে করতে সে বিরক্ত হয়! সেজন্যই শিশুদেরকে আগ্রহী করে তুলতে  বাংলা বর্ণমালা ও ইংরেজি বর্ণমালার সাথে ছড়ার ব্যবহার শুরু হয়! ছড়া পড়ে কিন্তু শিশুরা মজা পায়। কিছু কিছু বাচ্চা সেইসব ছড়া খুবই আগ্রহ নিয়ে পড়ে ও বলে। এজন্যই বিশ্বের অনেক উন্নত দেশে শিশুদেরকে প্রথমে প্রি-স্কুলে পাঠানো হয়। প্রি-স্কুল কিন্তু পড়ানো হয় না। সেখানে বাচ্চারা খেলে। নানান ধরণের জিনিস দিয়ে তাদের জন্য খেলাধুলার ব্যবস্থা করা হয়। মজার বিষয় হচ্ছে, সেখানে খেলার মধ্যেই শিশুদের শেখার উপাদান দিয়ে দেয়া হয়। ফলে শেখাটা হয় অনেক আনন্দময় ও উপভোগ্য। গবেষণায় এটা স্পষ্ট যে, শিশুরা খেলতে খেলতে যতটুকু শেখে পড়তে পড়তে শেখে তার চেয়ে কম।

ভিজ্যুয়াল খেলনার মাধ্যমে শিশুরা দ্রুত শেখে

একটু খেয়াল করলে দেখবেন, শিশুরা তার পছন্দের কার্টুনের সবকিছু হুবহু বলে দিতে পারে। ছবি, ভিডিও কিংবা তার  কালারফুল কোন মজার খেলনা সম্পর্কে তার ধারণা অনেক বেশি থাকে। কিন্তু সেই অনুপাতে বইয়ের পড়া সে বলতে পারে না। সেজন্যই অনেক খেলনা অনেক বেশি রঙিন হয়। অনেকেই শিশুকে বর্ণমালা শেখানোর জন্য কালারফুল ও ভিজ্যুয়াল কন্টেন্টের বর্ণমালা সমৃদ্ধ খেলনা দিয়ে থাকেন। খেলনার মাধ্যমে শেখানোর সুবিধা হলো, শিশু বুঝতে পারছে না সে পড়ছে। সে ভাবে সে খেলছে। এবং মনের আনন্দে খেলতে খেলতেই সে এভাবে ধীরে ধীরে অনেক কিছু শিখে যায়।

খেলনা মোটর স্কিল ও কগনেটিভ স্কিল বাড়ায়

বিভিন্ন মুভিং খেলনা দিয়ে (যেমন-মুভিং গাড়ি, পুতুল, বিমান ইত্যাদি) খেলার ফলে শিশুরাও খেলনার সাথে চলে। ফলে শিশুদের মোটর স্কিল ধীরে ধীরে বাড়ে। তারা অল্প অল্প করে হাঁটে, অল্প অল্প দৌড়ায়, মাঝে মাঝে পড়ে যায় আবার উঠে দাঁড়ায়। যারা হাঁটতে পারে না তারা হামাগুড়ি দেয়। এভাবে তার হাড় ও শারীরিক গঠন সমৃদ্ধ হয়। আর পাজল টাইপ বিভিন্ন খেলনার ফলে তার মস্তিষ্ক শক্তিশালী হয়।

খেলনা শিশুকে সৃজনশীল ও উদ্ভাবনী করে তোলে

পাজল খেলনা ছাড়াও আরো অনেক খেলনা আছে যা শিশুকে অনেক সৃজনশীল করে তোলে। লেগো খেলনা (যে খেলনা দিয়ে বিভিন্ন স্থাপনা বানানো যায়) দিয়ে খেলার সময় অনেক কিছুর আকার আকৃতি সম্পর্কে জানে ও বুদ্ধি খাটিয়ে সঠিকভাবে স্থাপনা তৈরি করার ফলে তার ভেতরে সৃজনশীলতা বাড়ে। সায়েন্স কিট বাচ্চাদের মাঝে বিজ্ঞানের জটিল বিষয়গুলোকে খেলার মতো করে উপস্থাপন করে। ফলে তারা মজা নিয়ে নতুন কিছু শিখতে পারে। আমাদের বিজ্ঞানবাক্সের অনেক ইউজার বিজ্ঞানবাক্সে থাকা ম্যানুয়ালের বাইরেও মাঝে মাঝে সম্পূর্ন নতুন কিছু একটা বানিয়ে পাঠায়। এই ধরণের খেলনা দিয়ে যখন শিশু খেলে তখন তার কোন বাঁধা থাকে না, সে ইচ্ছা মতো অনেক কিছুকে পরিবর্তন করতে পারে। ভুল করে! কিন্তু কখনো কখনো ভুল থেকেই শিখে নেয় সম্পূর্ণ নতুন কিছু। যা একটা শিশুর মধ্যে থাকা তার উদ্ভাবনী ক্ষমতাকে উৎসাহিত করে।

তবে বাচ্চাদের খেলনা কেনার সময় আগে অবশ্যই খেয়াল রাখবেন সেই খেলনা শিক্ষণীয় কি না? বাচ্চাদের খেলনা হিসেবে এমন কিছু দিবেন না যা তাকে নেতিবাচক ভাবে  প্রভাবিত করবে। অনেক বিশেষজ্ঞ শিশুকে বন্দুক জাতীয় খেলনা কিনে দিতে নিষেদ করেন। কারণ এইসব খেলনা শিশুর মাঝে নেতিবাচক আচরণ গড়ে তোলে!

বাংলাদেশের প্রথম এবং একমাত্র সায়েন্স কিট অন্যরকম বিজ্ঞানবাক্স আপনার সন্তানের অবসর সময় সুন্দর করবে, এবং তার মেধা বিকাশে সাহায্য করবে। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন।

458 total views, 1 views today

What People Are Saying

Facebook Comment