শিশুদের ব্যায়াম; সুস্থ ও সবল সন্তানের জন্য অবশ্যই দরকার

শিশুদের ব্যায়াম

আমাদের শৈশবের দৌড়ঝাঁপ, লাফালাফি, বন্ধুদের সাথে মাঠে সারা বিকেল শারীরিক কসরত করা বা খেলা ছিলো প্রতিদিনের ঘটনা। সারাদিন এইসব করার পরও বিন্দুমাত্র ক্লান্তি আমাদের স্পর্শ করতে পারতো না। এখন অফিস শেষে ক্লান্তি নিয়ে বাসায় এসে ভাবলেই প্রথমে মাথায় আসে, এত এনার্জি আমরা কোথায় পেতাম তখন! মূলত শৈশবে আমাদের ওইসব নিয়ম বিহীন দৌড়ঝাঁপই ছিলো আমাদের শারীরিক ব্যায়াম। স্টেমিনা বা এনার্জিও আসতো সেখান থেকেই। কিন্তু আপনার সন্তানের কথাটি ভাবুন তো? সে কি পাচ্ছে তেমন সময়, সুযোগ ও বিস্তৃত জায়গা! কষ্টকর হলেও সত্য; পাচ্ছে না! আর না পাওয়ার কারণে সঠিকভাবে তার শারীরিক গঠনও শক্তিশালী হচ্ছে না। কিন্তু একজন সুস্থ ও সবল সন্তানের জন্য এইসব অনেক জরুরি। সমাধান কি তাহলে? হ্যাঁ, আজকে আমরা জানবো সমাধান নিয়ে, শিশুদের ব্যায়াম নিয়ে। শিশুদের জন্য ব্যায়াম কেন দরকারি? আমাদের সীমিত সুযোগের মাঝেও কীভাবে নিয়মিত শিশুদের ব্যায়াম করানো যায়? আরো জেনে নিবো সহজ ও ঘরোয়া কিছু শিশুদের ব্যায়াম সম্পর্কে

শিশুদের ব্যায়াম কেন জরুরি?

শুধু শিশুদের জন্য না, সুস্থ ও সবল থাকার জন্য আপনারও শারীরিক ব্যায়াম অনেক বেশি জরুরি।
• ব্যায়াম করার ফলে শিশুদের হাড় ও পেশীর গড়ন ঠিকঠাক ও শক্তিশালী হয়।
• ব্যায়াম শরীরের অতিরিক্ত স্থূলতা কমাতে সাহায্য করে।
• ঘুমের সমস্যায় ভোগা শিশুদের জন্য ব্যায়াম অনেক বেশি কার্যকরী।
• শিশুদের মাঝে অতিরিক্ত উদ্যম থাকার ফলে তাদের মাঝে অস্থিরতা কাজ করে। ব্যায়ামের ফলে এনার্জি বার্ণ হওয়ায় সেই অস্থিরতা কমে যায়।
• নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস বাড়ে।
• ব্যায়াম অসুখের সাথেও যুদ্ধ করে। রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে, ডায়বেটিসের ঝুঁকি কমে ও অনেক ক্ষেত্রে কিছু ক্যান্সারের কোষের সাথেও যুদ্ধ করে।
• শারীরিক গড়ন সুন্দর হয়।
শিশুদের ব্যায়াম পরিণত বয়সেও তাকে সুস্থ ও সবল রাখতে সাহায্য করে।

৫ টি সহজ ও ঘরোয়া শিশুদের ব্যায়াম

হুলা হোপ

হুলা হোপ মূলত একটা খেলার নাম। কোমরে একটা চাকতি নিয়ে তা ঘোরানোই হুলা হোপ খেলা। ১৯৫০ সালের পর কিশোরীদের মাঝে এই খেলা ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠে। সাধারণত কয়েকবার খেলার পর এই খেলায় শিশুরা বেশ মজা পেতে শুরু করে। খেলা হলেও ব্যায়াম হিসেবে দারুণ কার্যকরী এই খেলা। এই চাকতি ঘোরানো খেলায় প্রতি ১০ মিনিটে ১০০ ক্যালোরি পোড়ানো সম্ভব হয়। আপনার সন্তানের সাথে আপনিও কিন্তু মাঝে মাঝে হুলা হোপ খেলে দেখতে পারেন। ভালো লাগবে।

দড়ি লাফ

শৈশবে দড়ি লাফ খেলেনি এমন ব্যক্তি খুঁজে পাওয়া কঠিনই হবে বটে। আপনিও খেলেছেন নিশ্চই। কিন্তু আপনি কি জানেন, মাত্র আধাঘন্টা দড়ি লাফ খেলে ৫০০ ক্যালোরি পর্যন্ত পোড়নো সম্ভব! এর সাথে শরীরের সহনশীলতা, ভারসাম্য, গতি বৃদ্ধিতো আছেই। হৃদপিন্ড আর ফুসফুসের সক্ষমতাও বাড়িয়ে দিবে দড়ি লাফ। বাজার থেকে দড়ি লাফ খেলার জন্য সুন্দর সুন্দর স্কিপিং রোপ কিনে দিতে পারেন শিশুদের। কিংবা বানাতে পারেন ঘরেও। এরপর লেগে পড়ুন খেলায়। আপনারও কিছু ক্যালোরি পুড়ে যাক।

দৌড়ানো

৭ বছরের নাতি থেকে শুরু করে ৭০ বছরের দাদু; সবার জন্য দৌড় এক ভালো থাকার জাদু। দৌড় এমন এক ব্যায়াম ছোট থেকে বড় সবার ফিট থাকার জন্য অতি জরুরি। স্টেমিনা বাড়ানোর জন্য দৌড়ের কোন বিকল্প নাই সাথে আর পেশী গঠনতো থাকছেই। গ্রামে দৌড়ের ভালো জায়গা থাকলে ভালো। অথবা সকাল বেলা বাসার পাশের পার্কে চলে যেতে পারেন দৌড়াতে। যেতে পারেন বলতে, সন্তান নিয়ে আপনিও গেলেন, একটু দৌড়ে আসলেন।

সাইক্লিং ও সাঁতার

সাইক্লিং ও সাঁতার এমন দুটি ব্যায়াম যার দ্বারা শরীরের প্রতিটা অংশের ব্যায়াম হয়ে যায়। দুটো ব্যায়ামই শিশুদের শারীরিক গঠনের জন্য দারুণ উপকারী। শরীরের জয়েন্টগুলো গঠনেও দারুণ কার্যকরী সাঁতার ও সাইক্লিং। একই সাথে হৃদপিন্ডের কার্যক্ষমতা বাড়ানো, ফুসফুস শক্তিশালী করা ও সহনশক্তি বাড়াতে এই দুই ব্যায়াম লাগবেই। সন্তানেকে সাইকেল কিনে দিয়ে সময় করে পার্কে নিয়ে যেতে পারেন আর সুবিধাজনক জায়গা ও সুযোগ পেলে শেখাতে পারেন সাঁতারও।

পুশ আপ

পুশ আপ ঘরে বসেই করা যায়। পুশ আপ আমাদের কার্ডিওভাসকুলার সিস্টেমের উন্নতির জন্য অনেক দরকারি। শরীরের পেশী গড়ন ও শক্তিশালী করাতে পুশ আপ বেশ কার্যকর। নিয়মিত পুশ আপ মানুষের আত্মবিশ্বাস অনেক গুণে বাড়িয়ে দেয়।

ছোট থেকেই নিয়মিত শারীরিক ব্যায়াম আপনার সন্তানের সুস্থতা, শারীরিক গড়ন ও তার স্টেমিনা বাড়াতে সাহায্য করবে।

আপনার সন্তানের মস্তিষ্ককে শক্তিশালী করতে ও তাকে সৃজনশীল করে গড়ে তুললে তাকে বিজ্ঞানবাক্স দিন।

নিয়মিত এমন কন্টেন্ট পেতে সাবস্ক্রাইব করুন

* indicates required




91 total views, 1 views today

What People Are Saying

Facebook Comment