ব্যায়াম যেমন আমাদের শরীরকে সুস্থ ও শক্তিশালী করে তেমনি মস্তিষ্ক শক্তিশালী করার জন্যও ব্যায়াম দরকার। মস্তিষ্কের ব্যায়াম মূলত মস্তিষ্ককে কাজে লাগানো, মস্তিষ্ককে ব্যবহার করা। মস্তিষ্ক যত বেশী ব্যবহৃত হবে তত বেশি সচল ও শক্তিশালী হবে। তেমনি আপনার সন্তানের মস্তিষ্ককে শক্তিশালী করতে ও এর কার্যকারিতা বাড়াতে তার মস্তিষ্ককে কাজে লাগাতে হবে। আর ছোট থেকেই মস্তিষ্ক শক্তিশালী হলে বড় হতে হতে তার ভাবনার জগতটা বড় হবে। সঠিক সিদ্ধন্ত নিতে পারলে ও সমস্যার সমাধান করতে শিখবে। আমরা আজকের ব্লগে এমন কিছু শিশুর খেলা সম্পর্কে জানবো যে গুলো শিশুকে বুদ্ধিমান করে তুলবে ও তাকে ভাবতে শেখাবে।

গুপ্তধন খুঁজে বের করা
এই খেলাটা একই সাথে শিশুকে নতুন করে ভাবতে ও সমস্যা সমাধান করতে শেখাবে। ছোটবেলায় আমরা আলিফ লায়লা বা এমন অনেক সিরিজে বিভিন্ন সুত্রকে কাজে লাগিয়ে সমস্যা সমাধান ও অনেক কঠিন যায়গার সন্ধান পেতে দেখেছি। এই খেলাটা অনেকটাই তেমন।
শিশুর জন্য কোন গিফট অথবা অন্য যেকোন কিছু এনে একটা জায়গায় লুকিয়ে রেখে তা খুঁজে পাওয়ার জন্য তাকে কিছু হিনটস দিন। সে হিন্টস দেখে তা খুঁজে বের করুক। যেমন-গিফটটি রাখুন সন্তানের টেবিলের ড্রয়ারে, এরপর একটা চিরকুট দিন সেখানে লেখা থাকুক “তোমার গিফটের পাওয়ার পরবর্তী নির্দেশনা ডানপাশের সোফায় রাখা” ডানপাশের সোফায় টিভির রিমোট থাকতে পারে। রিমোটের সাথে টিভির যেহেতু একটা সম্পর্ক আছে টিভির আশেপাশে কোথায় অন্য একটা কাগজে তার গিফটটা কোথায় আছে তা উল্লেখ করে দিন। চাইলে আপনি কয়েকটা ধাপ বাড়াতেও পারেন।

পাজল গেম
আমরা ছোটবেলায় এটাকে মিলান্তিস বলতাম। বিভিন্ন মেলায় পাওয়া যেতো, একটা বোর্ডে একটা ছবিকে অনেকগুলো ভাগে কেটে রাখে। সবগুলো কাটা অংশ ঠিকভাবে বসালে একটা সুন্দর কিছুর ছবি পাওয়া যেতো। অনেক কষ্টে একটা মিলাতে পারতাম। মিলাতে পারলেই খুশি আর দেখতো কে! মূলত এটাই হলো পাজল গেম। এখনতো বাজারে নানান ধরণের পাজল পাওয়া যায়। সেগুলো শিশুকে কিনে দিতে পারেন। এইসব সমাধান করার মাধ্যমে শিশুর মস্তিষ্ক সমস্যা সমাধানে কার্যকরী হয়ে উঠবে ধীরে ধীরে। এখনকার বাচ্চাদের মাঝে রুবিক্স কিউব বেশ জনপ্রিয়। বাজারে নানা ধরণের রুবিক্স কিউব পাওয়া যায়। শিশুর খেলা’র জন্য তাকে রুবিক্স কিউবও কিনে দিতে পারেন।

দ্রুতগতির বিমান
শিশুরা কাগজের বিমান বানাতে পছন্দ করে অনেক। দু-তিন জন শিশুকে গ্রুপ করে তাদের মাঝে কাগজের বিমান বানানোর প্রতিযোগিতা করা যেতে পার। শর্ত থাকবে, কার বিমান বেশিক্ষণ আকাশে ভাসতে পারে। এতে শিশুরা আকাশে বেশিক্ষণ থাকার জন্য ওইভাবে কাগজের বিমান বানানোর চেষ্টা করবে। এই সুযোগে তাদের সায়েন্টিফিক ধারণা সমৃদ্ধ হবে। যেমন বিমানের পাখা একটু বড় হলে বিমানটি বাতাসের বাঁধা পাবে বেশি ফলে সে মাটিতে পড়বে একটু দেরি করে, কোন এঙ্গেলে বিমান ছুড়লে তা আকাশে বেশিক্ষণ থাকবে এবং কেনো থাকবে, এই ধারণাও শিশুর খেলা’র ছলেই তাকে শেখাতে পারেন।

জয়েন দ্যা ডট
আমরা ছোট বেলায় খাতায় বিন্দু এঁকে তা সরল রেখার মাধ্যমে মিলিয়ে চতুর্ভুজ বানাতাম। এইটা তেমনই একটা খেলা। খাতায় অনেকগুলো বিন্দু এঁকে শিশুকে দাগ টেনে বিন্দুগুলো একত্র করতে বলুন। এভাবে কখনো চতুর্ভুজ বানাতে বলুন কখনো ত্রিভুজ। এরপর চতুর্ভুজের চার কোনায় চারটা বর্ন লিখে একটা অর্থপূর্ণ শব্দ বানাতে বলুন। এভাবে চতুর্ভুজের ক্ষেত্রে চার অক্ষরের অর্থপূর্ণ শব্দ ও ত্রিভুজের ক্ষেত্রে তিন অক্ষর দিয়ে একটা অর্থপূর্ণ শব্দ বানাতে বলুন। এভাবে শিশুর খেলা’র মাধ্যমে তার গণিতের দক্ষতাও বাড়াতে পারেন।

এভাবে নিজে নিজে শিশুর খেলা’র বিভিন্ন পদ্ধতি আবিষ্কার করে শিশুকে বুদ্ধিমান করে তুলুন ও সমস্যা সমাধানে দক্ষ করে তুলুন। আপনার শিশুর পড়ালেখাকে আরো মজাদার করার সাথে সাথে তাকে সৃজনশীল, বিজ্ঞানমনস্ক করে তুলতে তাকে বিজ্ঞানবাক্সও উপহার দিতে পারেন। অন্যরকম বিজ্ঞানবাক্সের ছয়টি কিটে রয়েছে ২০০ টিরও অধিক সায়েন্টিফিক এক্সপেরিমেন্ট। তাছাড়া কিছু দিনের মধ্যেই অন্যরকম বিজ্ঞানবাক্সের আরো অনেকগুলো নতুন কিট আসছে।

অন্যরকম বিজ্ঞানবাক্স কেনার জন্য এই লিংকে ক্লিক করুন। বিজ্ঞানবাক্সের সাথে শিশুদের জন্য থাকছে শিক্ষণীয় অনেক বই।

100 total views, 1 views today

What People Are Saying

Facebook Comment