Show Categories

শিশুর স্কুল শুরুর প্রস্তুতি : স্কুলজীবন হোক সুন্দর ও শঙ্কাহীন

Bigganbaksho Kid drawing

“স্কুলের প্রথম দিন বা প্রথম সপ্তাহ শিশুর কাছে কতটা আনন্দের বা ভীতির হচ্ছে, তার ওপর নির্ভর করবে ওর পরবর্তী সব পারফরম্যান্স। তাই স্কুলের পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নেয়ার জন্য শিশুকে বাড়িতেই তৈরি করে নিতে হবে।“ শিশুর স্কুল শুরুর প্রস্তুতি সম্পর্কে এমনটাই মত দিয়েছেন University of Calgary’র Educational Psychology বিষয়ের এ্যাসিসট্যান্ট প্রফেসর Michael Lee Zwiers

শিশুর স্কুল শুরুর প্রস্তুতি কেন প্রয়োজন? 

এমনিতে সন্তানের স্কুলের প্রথম দিনটাকে সফল আর স্মরণীয় করে তোলার জন্য আপনি হয়তো অনেক কিছুই করেছেন। আইসক্রিম কিনে দিয়েছেন, গান শুনিয়েছেন পথে যেতে যেতে, গল্প বলেছেন, এমনকি ওর সঙ্গে ছবিও তুলেছেন। প্রথম দিনটা আনন্দের হলেই স্কুলের প্রতি তার অনীহা জাগবে না, তা আপনিও বোঝেন। কিন্তু এত কিছুর পরও দেখলেন স্কুলে গিয়ে ক্লাস রুমে বসতেই চাইছে না সে। কাঁদছে, ভয় পাচ্ছে, কিংবা মনমরা হয়ে আছে।

আসলে, স্কুলের জন্য ছোট্ট সোনামণিদের পুরোপুরি প্রস্তুত করতে হলে চাই একটু পূর্ব প্রস্তুতি। কিছু নতুন অভ্যাস। খুব বেশি না, প্রফেসর Lee মনে করেন,  মোটামুটি পাঁচটি বিষয় অনুসরণ করেই শিশুর স্কুল শুরুর প্রস্তুতি নেয়া যেতে পারে। স্কুলের নতুন রুটিনে শিশুদের অভ্যস্ত করে ফেলা যেতে পারে। এখন সেগুলোই বলব।

১। বাসার রুটিনে পরিবর্তন আনা এবং শিশুর সঙ্গে কথা বলা প্রয়োজন

স্কুল শুরুর সপ্তাহখানেক আগে থেকে তার রুটিনে কিছু পরিবর্তন আনা প্রয়োজন। কখন ঘুমুতে যাবে, কখন উঠবে-এইসব। এগুলো করতে হবে তার স্কুল রুটিন কেমন হতে পারে সেটা বুঝে। এরকম রুটিন মেনে চললে স্কুলের সময়টিতে সে আর বিরক্ত হবে না। শিশু স্কুলে কী কী আশা করছে, আর কী কী তার ভাবনার বিপরীতে যেতে পারে এগুলো নিয়ে তার সঙ্গে কথা বলতে হবে। আগে থেকেই তাকে স্কুল সম্পর্কে ধারণা দিয়ে রাখলে তার প্রত্যাশা সেই অনুযায়ীই তৈরি হবে। কিন্তু খেয়াল রাখতে হবে, বলতে গিয়ে তাকে নিরুৎসাহিত যেন না করা হয়। শিশুর স্কুল শুরুর প্রস্তুতি হতে হবে সঠিক চিন্তা-ভাবনা নির্ভর।

২। শিক্ষকদের শিশুটির চরিত্র-বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে বুঝিয়ে বলা যেতে পারে 

একটা নতুন শিক্ষার্থী সম্পর্কে শিক্ষকরা সচেতনই থাকেন। তাই তাদের বুঝিয়ে বলা যেতে পারে শিশুটির কিসে ভয় বা দুঃশ্চিন্তা, তার শারীরিক অবস্থা, আগ্রহের জায়গা ইত্যাদি। তাহলে শিক্ষকদের সঙ্গে শিশুটির দূরত্ব তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা কমে যাবে। এটাকে শিশুর স্কুল শুরুর প্রস্তুতি’র গুরুত্বপূর্ণ অংশ মনে করেন Lee.

৩। স্কুলের সার্বিক পরিস্থিতি তাকে আগেই দেখিয়ে আনা যেতে পারে

শিশুকে স্কুল সম্পর্কে খুব বেশি উদ্বিগ্ন দেখালে আগেই তাকে স্কুলের ওয়াশরুম, মাঠ, ক্লাসরুম দেখিয়ে আনা যেতে পারে। শিক্ষকদের সঙ্গে সাক্ষাত করিয়ে আনা যেতে পারে। কিন্তু তার আগে অভিভাবককে নিশ্চিত হয়ে নিতে হবে, বাচ্চা কোন স্কুলে পড়বে।

৪। শিশুর সঙ্গে তার পরিচিত বা পছন্দের কিছু দেয়া যেতে পারে

আমাদের দেশে বেশিরভাগ স্কুলেই অভিভাবককে ক্লাসরুমে ঢুকতে দেয়া হয় না। এতে করে শিশুদের ভড়কে যাবার ঘটনা ঘটে। পূর্ব প্রস্তুতি থাকলেও, অভিভাবক ছাড়া সম্পূর্ণ নতুন ক্লাসরুমে সে অসহায় বোধ করে। এরকম অবস্থা এড়াতে শিশুর সঙ্গে দেয়া যেতে পারে তার প্রিয় কোনো খেলনা, তাকে স্কুলে পরিয়ে নেয়া যেতে পারে তার সবচে’ পছন্দের জামা, তার ব্যাগে বা খাতায় দিয়ে দেয়া যেতে পারে পারিবারিক ছবি। এতে করে সে আশ্বস্ত থাকবে কিছুটা হলেও। শিশুদের

৫। স্কুলের নিয়ম-কানুন সম্পর্কে তাকে ধারণা দিতে হবে এবং কাছাকাছি থাকতে হবে

স্কুল শুরুর আগে তাকে স্কুলের নিয়ম-কানুন সম্পর্কে ধারণা দিতে হবে- বেল দেয়ার সময়, লাঞ্চ পিরিয়ড, ছুটি, কোনো ইউনিক কোড ইত্যাদি। সর্বোচ্চ চেষ্টা করতে হবে নিজে স্কুলে পৌঁছে দেয়ার জন্য। কাছাকাছি থাকার কথা বলে এবং স্কুল ছুটি হওয়া মাত্র উপস্থিত হওয়ার আশ্বাস দিলে সে কম চিন্তিত থাকবে।

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আপনার সন্তান এবং আপনার জন্য দিনটি হবে আনন্দের। আপনার সন্তানের স্কুলজীবন হবে সুন্দর ও শঙ্কাহীন। এইজন্যই শিশুর স্কুল শুরুর প্রস্তুতি তার স্কুলে ভর্তির সবচে’ গুরুত্বপূর্ণ অংশ।

বাংলাদেশের প্রথম এবং একমাত্র সায়েন্স কিট অন্যরকম বিজ্ঞানবাক্স আপনার সন্তানের অবসর সময় সুন্দর করবে, এবং তার মেধা বিকাশে সাহায্য করবে। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন।

 

 

 

 

 

 

563 total views, 1 views today

What People Are Saying

Facebook Comment