Show Categories

৫ সেকেণ্ডের জন্য অক্সিজেনশূন্য পৃথিবী !! কী হবে ?

অক্সিজেন

নাইট্রোজেনের তুলনায় বায়ুমণ্ডলে অক্সিজেনের পরিমাণ কম হলেও, এটিই বায়ুমণ্ডলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। এটি ছাড়া কেউই বেঁচে থাকতে পারবে না। একবার চিন্তা করো পুরো পৃথিবীতে ৫ সেকেণ্ডের জন্য অক্সিজেনশূন্য হয়ে গেল, তাহলে কী ঘটবে?
তুমি হয়তো ভাবছো নিঃশ্বাস না নিয়েই তো ৩০ সেকেণ্ড থাকা যায়, তাহলে ৫ সেকেণ্ড অক্সিজেন না থাকলে এমন কী আর হবে! হ্যাঁ ৩০ সেকেণ্ডের জন্য তোমার ধারণা ঠিক আছে, কিন্তু একটু চিন্তা করো পুরো পৃথিবীতে যদি ৫ সেকেণ্ডের জন্য অক্সিজেন না থাকে তাহলে কি কি ঘটবে? পৃথিবী পরিণত হবে এক ধ্বংসস্তূপে।

চলো দেখি কি ধরণের পরিবর্তন হতে পারে অক্সিজেনহীন পৃথিবীতে-

১) দিনের বেলায় আকাশ অন্ধকারাচ্ছন্ন হয়ে যাবেঃ সূর্যের আলো পৃথিবীতে পৌঁছানোর আগে বায়ুতে থাকা বিভিন্ন উপাদানের (অক্সিজেন কণা, ধূলাবালি, ইত্যাদি) সাথে প্রতিফলিত হয়ে তারপর আসে। কিন্তু বায়ুতে যদি অক্সিজেন তথা অক্সিজেনের কণা না থাকে তাহলে সূর্যরশ্মি প্রতিফলিত হয়ে পৃথিবীতে আসতে পারবে না, তখন পুরো পৃথিবী অন্ধকারে ঢেকে যাবে।

২) পৃথিবী পৃষ্ঠ টুকরো টুকরো হয়ে যাবেঃ ভূত্বকের উপাদান ৪৬% অক্সিজেন সমন্বয়ে গঠিত। ভূত্বক গঠনের এই প্রধান উপাদান অক্সিজেন যদি না থাকে তাহলে ভেঙে পড়বে মাটির স্তর। আমরা মুক্তভাবে নিচে পড়তে থাকবো। ভেঙ্গে পড়বে সকল স্থাপনা। আর এজন্যই তখন আমাদের উড়ন্ত গাড়ির প্রয়োজন পড়বে।

৩) ত্বক পুড়ে যাবেঃ ওজোন গ্যাস সূর্যের অতিবেগুনী রশ্মি পৃথিবী পৃষ্ঠে আসতে বাধা দেয়। আর এই ওজোন গ্যাস (O3)  একাধিক অক্সিজেনের সমন্বয়ে গঠিত। কিন্তু যদি অক্সিজেন না থাকে তাহলে মুক্ত ভাবে অতিবেগুনী রশ্মি পৃথিবী পৃষ্ঠে আসবে ফলে পৃথিবীকে একটা গরম রুটি ছেঁকার যন্ত্রের মত মনে হবে। আর এ সময় যদি তুমি সমুদ্র সৈকতে যেয়ে মনের আনন্দে সানবাথ করো তাহলে  তোমার ত্বক অতিবেগুনি রশ্মির প্রভাবে ঝলসে যাবে।

আরো পড়তে – সাহারা মরুভূমিতে যদি সোলার প্যানেল বসানো যায় তাহলে কী হবে ?

৪) কানের ভিতর বিস্ফোরণ হবেঃ বায়ুতে অক্সিজেন না থাকলে বায়ুর চাপ ২১% কমে যাবে, ঠিক যেন সমুদ্রের ২০০০ মিটার নিচে বায়ুর চাপ যেমন থাকে। হঠাৎ বায়ুর চাপ এত পরিমাণ কমে গেলে কান তার সাথে মানিয়ে নিতে পারে না ফলে কানের মধ্যভাগ ফেটে যেতে পারে। এই লেখা পড়তে পড়তে কানে হাত দিয়েছ নিশ্চয়ই!

৫) পানি বাষ্প হতে শুরু করবেঃ পানি মূলত ২ ভাগ হাইড্রোজেন ও ১ ভাগ অক্সিজেন সমন্বয়ে গঠিত। ৩৩% অক্সিজেন ছাড়া পানি হয়ে যাবে হাইড্রোজেন গ্যাস। সকল উপাদান থেকে হাইড্রোজেন গ্যাস হালকা। ফলে দেখা যাবে অক্সিজেন ছাড়া পৃথিবীর সমস্ত পানি একসময় গ্যাস হিসাবে উড়ে যাবে। পৃথিবী পরিণত হবে এক বিশাল মরুভূমিতে।

৬) যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যাবেঃ আমরা জানি আগুন জ্বালানো বা দহনের জন্য অক্সিজেন প্রয়োজন। অক্সিজেনের অভাবে দহন প্রক্রিয়া বন্ধ হয়ে সমস্ত গাড়ি সড়কে আটকে থাকবে। বৈদ্যুতিক গাড়ি বাদে তেল চালিত সকল প্রকার যানবাহন বন্ধ হয়ে যাবে। এমন কি বিমানের দহন প্রক্রিয়া বন্ধ হয়ে পতিত হবে ভূপৃষ্ঠে। একবার চিন্তা করো তো যানবাহনহীন পৃথিবীতে যোগাযোগের উপায় কী হবে?

৭) সকল ধাতব পদার্থ যুক্ত হয়ে যাবেঃ ধাতুকে আলাদা করার জন্য ধাতুর উপর অক্সিডেশনের প্রলেপ দেওয়া হয়। কিন্তু যদি অক্সিজেন না থাকে তাহলে অক্সিডেশন প্রলেপ মুক্ত ধাতুগুলো একে অন্যের সাথে মিশে যাবে। তোমার ঘরের জানালার গ্রিল, প্রিয় সাইকেলটা কি ঠিক থাকবে?

৮) কংক্রিটের তৈরি সকল স্থাপনা ধংস হবেঃ কংক্রিটের কণাগুলো একে অন্যের সাথে আবদ্ধ রাখতে অক্সিজেনের উপস্থিতি একান্ত দরকার। কিন্তু অক্সিজেনই যদি না থাকে তাহলে কংক্রিট হয়ে যাবে ধুলাবালির ন্যায়। ধ্বংস হয়ে যাবে পৃথিবীর বিশাল বিশাল সব অট্টালিকা। থাকবে না আর  পৃথিবীর সুউচ্চ ভবনের নিশানা।

সুতরাং পৃথিবীকে ধ্বংসের হাত থেকে বাচাঁতে আমাদের অক্সিজেনের চাষ করতে হবে। অক্সিজেন চাষের জন্য চলো গাছ লাগাই।

আলো দিয়ে শব্দ প্রেরন করতে চাও বিজ্ঞানবাক্স খুজে নাও।

290 total views, 1 views today

What People Are Saying

Facebook Comment