Frequently Asked Question-FAQ

  • বিজ্ঞানবাক্সে কী কী আছে সংক্রান্ত প্রশ্ন ও উত্তর
    • আলোর ঝলকে আছে
      ছিদ্রযুক্ত কাগজ, মোমবাতি, কার্ডবোর্ড, পিনহোল ক্যামেরা বক্স, বাউন্সিং বল, আয়না, পেরিস্কোপ বক্স, ক্যালাইডোস্কোপ বক্স, ফ্ল্যাশ লাইট, স্ট্রোবোস্কোপ, মোটর, উত্তল লেন্স, ব্যাটারি এবং কেসিং, বর্ণ চাকতি এবং মজার চশমা। এছাড়াও সংগ্রহ করে নিতে হবে রঙিন কাপ, গ্লাস, বাটি, প্লাস্টিক বোতল, পেন্সিল ইত্যাদি।
    • চুম্বকের চমকে আছে
      দণ্ড চুম্বক, নিয়োডিমিয়াম চুম্বক, লোহার গুড়ো, কম্পাস, সুইচ, জেমস ক্লিপ, রিং ম্যাগনেট, খেলনা কুমির, খেলনা সুপারম্যান, পেন্সিল, মোটর, রিড সুইচ, সুতো, ফোম, ডিম্বাকৃতির চুম্বক ইত্যাদি!
    • রসায়ন রহস্যে আছে
      রাবারের বল, ফুড কালার, ডিশ ক্লিনার, গ্লিসারিন, বিকার, ক্যালবো সি ট্যাবলেট, কপার সালফেট, মোমবাতি, প্লাস্টিক ড্রপার, বেকিং পাউডার আরো অনেক কিছু। তবে রসায়নের সব উপকরণ তো আর বক্সে দেয়া সম্ভব না, তাই সংগ্রহ করে নিতে হবে পানি, তেল, কোক, দুধ, কিসমিস, আলু; আরো কিছু জিনিস।
    • তড়িৎ তাণ্ডবে আছে
      জেমস ক্লিপ, ক্রোকোডাইল ক্লিপ, পুশ পিন, এল ই ডি (LED), এল ডি আর (LDR), প্লাস্টিক উড, কপার দণ্ড, থার্মিস্টর, জেনার ডায়োড, ক্যাপাসিটর, রিং ম্যাগনেট, কার্ডবোর্ড, বেলুন ইত্যাদি।
    • অদ্ভুত মাপজোখে আছে
      অদ্ভুত মাপজোখে অনেক মজার একটি যন্ত্র আছে। আর তা হল মাল্টিমিটার। এটা দিয়ে কারেন্ট মাপা যায়, ভোল্টেজ মাপা যায়, রেজিস্ট্যান্স মাপা যায়। এছাড়াও থাকছে থার্মিস্টার, এল.ডি.আর, রেজিস্টার, সাধারন ডায়োড, জেনার ডায়োড, এল.ই.ডি, IR রিসিভার, ব্যাটারি, বাযার, ছোট ব্যাটারি, ব্যাটারি কেসিং, ওয়্যারলেস মডিউল, ক্যাপাসিটর, অডিও জ্যাক, মিউজিক্যাল মডিউল, ক্রোকোডাইল ক্লিপ, সাউন্ড সেন্সর। আরো প্রয়োজন হতে পারে মোমবাতি, টর্চ, গরম চায়ের কাপ, বরফ আর বাসার টিভি রিমোট।
    • শব্দ কল্পে আছে
      শব্দ কল্পে অনেক মজার মজার যন্ত্র আছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে মিউজিক বক্স, বেলুন, অডিও জ্যাক, ক্রোকোডাইল ক্লিপ, এল ডি আর (LDR), হুইসেল, লেজার মডিউল, সাউন্ড মডিউল, মিউজিক্যাল মডিউল, ডটবার মডিউল, সাউন্ড জেনারেটর, রিং ম্যাগনেট, চিয়ারিং স্টিক, ছোট্ট আয়না, রাবার পাইপ,বাঁশি, স্লিংকি, স্টেথোস্কোপ হেডসহ আরো কিছু জিনিষ। এছাড়াও প্রয়োজন হতে পারে সিরিঞ্জ, প্লেট, চামচ, প্লাস্টিক পাইপ, হেডফোন বা ইয়ারফোন, চাল, টিস্যু রোল ইত্যাদি।
  • বিজ্ঞানবাক্সের এক্সপেরিমেন্ট ও অ্যাক্টিভিটি সম্পর্কিত প্রশ্ন ও উত্তর
    • আলোর ঝলকে কী কী পরীক্ষা আছে?
      আলোর বিভিন্ন তত্ত্ব, যেমন প্রতিফলন, প্রতিসরণ ইত্যাদি সূত্র ব্যবহার করে মোট ২৫টি এক্সপেরিমেন্ট করা যায়। যেমন, আগুন ছাড়াই কাগজ জ্বালানো, অদৃশ্য কয়েন আবিষ্কার করা, আয়না দিয়ে রংধনু তৈরি করা, পেরিস্কোপের সাহায্যে দৃষ্টিসীমার বাইরের দৃশ্য দেখা, ক্যালাইডোস্কোপের বর্ণিল জগতে ঢুকে পড়া, আলোকে বলের মত বাউন্স দেয়া, স্ট্রোবোস্কোপ দিয়ে দুনিয়া দেখা, লেজার লাইট দিয়ে তরল আলো তৈরি করা, জাল টাকা ধরা ইত্যাদি!
    • চুম্বকের চমকে কী কী পরীক্ষা আছে?
      নিয়োডিমিয়াম চুম্বক, ব্যাটারি এবং পেরেক ব্যবহার করে ম্যাজিক মোটর তৈরি, চুম্বকের চারপাশে লোহার গুড়ো ছড়িয়ে দিয়ে বলরেখা দৃশ্যায়ন, ডিম্বচুম্বক ব্যবহার করে বিশেষ ধরনের সঙ্গীত তৈরি করা, বড় চুম্বক থেকে বাচ্চা চুম্বক তৈরির মাধ্যমে পাঠ্যবইয়ের ডোমেইন তত্ব প্রয়োগ করা , হাতের স্পর্শ ছাড়াই কোন বস্তুকে সরানো, ম্যাগনেটিক নিক্তি তৈরি, অচুম্বক পদার্থের সাথে চুম্বকের সংস্পর্শে স্লো মোশন ম্যাজিক দেখা, কলিং বেল তৈরি, তারকে লাফাতে সাহায্য করা, চুম্বকের আকর্ষণ এবং বিকর্ষণ ধর্মকে কাজে লাগিয়ে অচুম্বক পদার্থকে চুম্বক বানানো ইত্যাদি।
    • রসায়ন রহস্যে কী কী পরীক্ষা আছে?
      ফুঁ না দিয়েই বেলুন ফোলানো , কিশমিশকে নাচানো, দুধের মধ্যে রংধনু বানানো, লাভা ল্যাম্প তৈরি করা, , হারানো কয়েন উদ্ধার করা, তড়িৎ দিয়ে লবণ ভাঙা, কার্বন ডাই অক্সাইড গ্যাস সনাক্ত করা এমন মোট ২০টি এক্সপেরিমেন্ট আছে রসায়ন রহস্যে।
    • তড়িৎ তাণ্ডবে কী কী পরীক্ষা আছে?
      ফল মূল অথবা শাকসবজি দিয়ে লাইট জ্বালানো, চুল দিয়ে বেলুন ঘষে ভেতরে স্থির তড়িৎ তৈরি করে তা দিয়ে পানির ধারাকে বাঁকানো, পরিবর্তনশীল রোধের সূত্র ব্যবহার করে লাইট দিয়ে লাইট জ্বালানো, সরল বর্তনীর সূত্র প্রয়োগের মাধ্যমে শব্দ সংকেত তৈরি, সিরিজ ও প্যারালাল কানেকশন বানাতে শেখা, ইত্যাদি। এমন মোট ২০টি এক্সপেরিমেন্ট রয়েছে।
    • অদ্ভুত মাপজোখে কী কী অ্যাক্টিভিটি আছে?
      এখানে প্রথমেই জানা যাবে মাল্টিমিটার সম্পর্কে। ছোট্ট মিটারের যে কত কারিশমা তার ইয়ত্তা নেই! মিটার স্কেল এ কোনটা কি একক নির্দেশ করে সে ব্যাপারে থাকছে বিস্তর আলোচনা। মূল এক্টিভিটিগুলোতে থাকছে মিটার, ব্যাটারি এবং নানান রং এর LED লাইটের সাহায্যে পরিমাপ করা কোন রং এর লাইটে কতটুকু কারেন্ট প্রয়োজন, রোধের সাহায্যে দেখা যাবে কোন জিনিস বিদ্যুৎ পরিবাহী আর কোনটি নয়, LDR ব্যবহার করে মাপা যাবে আলোর তীব্রতা, ক্যাপাসিটরে চার্জ দেয়া এবং তা ঠিকঠাক কাজ করছে কিনা দেখা, থার্মিস্টারের সাহায্যে পরিমাপ করা ঠান্ডা নাকি গরম। আরো মজার একটি জিনিস হল সাউন্ড সেন্সর মডিউল। এটা দিয়ে মাপা যাবে কে কত জোরে চিৎকার করতে পারে। আর রিমোটের অদৃশ্য রশ্মি খুঁজে বের করার কাজটাও ঠিকঠাক করে দিতে পারবে বিজ্ঞানবাক্সের IR রিসিভার।
    • শব্দ কল্পে কী কী পরীক্ষা বা অ্যাক্টিভিটি আছে?
      বেলুনের ভিতরে ত্রিভুজ- চতুর্ভুজ- পঞ্চভুজ বা এমন ধরণের ছোট বস্তুকে ঢুকিয়ে বেলুনের মজার চিৎকার বের করা, কাগজের কাপ ও ভেজা সুতা দিয়ে মুরগীর ডাক বের করা, মিউজিক বক্স দিয়ে চমৎকার শব্দ তৈরি করা, বক্সে দেয়া কাগজের কাপ দিয়ে টেলিফোন বানানো, সাউন্ড হোস দিয়ে মজার শব্দ তৈরি করা, বাঁশি ও স্লিংকি দিয়ে স্থির তরঙ্গ সম্পর্কে জানা, সাউন্ড জেনারেটর মডিউল দিয়ে কম্পাংক পরিবর্তনের ফলাফল বের করা, কাগজের কাপ, তারের কুণ্ডলী, ব্যাটারি ও মিউজিক্যাল মডিউল দিয়ে স্পিকার বানানো, ডট বার মডিউল দিয়ে শব্দের তীব্রতা মাপা সহ আরও কিছু পরীক্ষা এবং অনেকগুলো অ্যাক্টিভিটি।

End